hello@gigatechltd.com+880255013748

SAM Tower, Level 7, House No. 4 , Road No 22, Gulshan-1, Dhaka-1212

Media

দেশে আর্থিক নিরাপত্তা বিস্তৃত করছে গিগা ই-কেওয়াইসি

Group-2720@2x-4

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক: দেশের ডিজিটাল ব্যাংকিং সেবা ব্যবস্থাপনায় অগ্রগতি আনতে বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট, বাংলাদেশ ব্যাংক ইলেকট্রনিক গ্রাহক তথ্য সংগ্রহ সংক্রান্ত বিশেষ একটি আদেশ জারি করেছে। ২০২০ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে ইলেকট্রনিক নো ইয়োর কাস্টমার (ই-কেওয়াইসি) দেশের সব ব্যাংক, বীমা ও আর্থিক সেবা প্রতিষ্ঠানে চালুর পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে।  ওয়ার্ল্ড ইকনোমিক ফোরামের হিসেবে প্রতিবছর অ্যান্টি মানি লন্ডারিংয়ে ৮.২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয় করছে বিশ্বের ব্যাংকগুলো। ইউএন অফিস অন ড্রাগস অ্যান্ড ক্রাইমের হিসেবে মানি লন্ডারিং অপরাধের কারণে বিশ্বব্যাপি প্রতি বছর ক্ষতি হচ্ছে ২.৩ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার, যা কিনা বিশ্বের সব দেশের জিডিপির ৫ শতাংশের সমান। বৈশ্বিক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান  কেপিএমজির তথ্য জানাচ্ছে, বিশ্বজুড়ে ৬০ভাগ ব্যাংক আর্থিক সেবা ব্যবস্থাপনায় ঝুঁকিতে আছে। কেপিএমজি ইন্টারন্যাশনালের গ্লোবাল ফ্রড লিড ন্যাটালিয়া ফকনারের ভাষ্যে, ‘বিশ্বজুড়ে ডিজিটাল প্রযুক্তি নির্ভর ব্যাংকিংখাতে নানান ঝুঁকি দেখা দিচ্ছে। ব্যাংকগুলোকে কার্যকর ও দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন।’ ২০১৫ সাল থেকে ২০১৯ সালে বিশ্বজুড়ে আর্থিক প্রতারণা বেড়েছে ৬১ শতাংশ। ম্যাকেঞ্জির হিসেবে আর্থিক অপরাধের জন্য বিশ্বজুড়ে ব্যাংকগুলোর ক্ষতি হচ্ছে ১২৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। বাংলাদেশের বিভিন্ন সরকারী ও বেসরকারী ব্যাংক ও আর্থিক সেবা প্রতিষ্ঠানগুলোও সাইবার অপরাধ ও অ্যান্ট মানি লন্ডারিংয়ের মত বিভিন্ন বিষয়ে ঝুঁকির মুখে আছে। প্রযুক্তি অগ্রগতির কল্যানে ঝুঁকি বাড়ছে।